এটি 'মিশরের আকাশে দেখা অবাক করা দশ্য' নয়, ডিজিটাল পদ্ধতিতে তৈরি শিল্পকর্ম

কপিরাইট এএফপি ২০১৭-২০২২। সর্বস্বত্ত্ব সংরক্ষিত।

আকাশে মানবাকৃতির একটি অবয়ব ভেসে বেড়াচ্ছে এমন একটি ভিডিও ফেসবুকে শেয়ার করে দাবি করা হচ্ছে এটি মিশরের আকাশে অবাক করা একটি দৃশ্য। দাবিটি অসত্য; ভিডিও ক্লিপটি ডিজিটাল পদ্ধতি ব্যবহার করে ব্রাজিলিয়ান এক শিল্পী তৈরি করেছেন।

আকাশে মেঘের মধ্যে ভেসে ভেড়ানো অবয়বটির ভিডিও গত ১৯ জানুয়ারি ফেসবুকে এখানে শেয়ার করা হয়। 

 

পোস্টটির ক্যাপশনে লেখা রয়েছে, “মিশরের কায়রোতে এমন দৃশ্য দেখে মানুষ অবাক।”

পোস্টটিতে ফেসবুক ব্যবহারকারীদেরকে, ‘সুবহান আল্লাহ’ ও ‘আল্লাহু আকবার’ প্রভৃতি মন্তব্য করতে দেখা যায়।

একইরকম ক্যাপশনসহ ভিডিওটি ফেসবুকে এখানেএখানে শেয়ার করা হয়।

তবে দাবিটি অসত্য।

ভিডিওটির কী-ফ্রেম দিয়ে গুগলে রিভার্স ইমেজ সার্চ করলে দেখা যায় যে ভিডিওটি ২০১৯ সালের ২৭ জুলাই ইনস্টাগ্রামে পোস্ট করা হয়। 

জেসেন কার্লোস নামের একটি অ্যাকাউন্ট থেকে ভিডিওটি পোস্ট করা হয়। জেসন কার্লোস অ্যাকাউন্টটিতে নিজেকে শিল্পী হিসেবে পরিচিতি দিয়েছেন। 

পোস্টটির ক্যাপশনে লেখা রয়েছে, “স্বর্গে ফেরেশতা। জেসন কার্লোসের শিল্পকর্ম।”

একই বছরের ১৭ ডিসেম্বর জেসনের অ্যাকাউন্ট থেকে অপর একটি ভিডিও পোস্ট করে কিভাবে ভিডিওটি বানানো হয়েছে তা ব্যাখ্যা করে দেখানো হয়েছে। 

নীচে জেসনের ব্যাখ্যামূলক ভিডিওর স্ক্রীনশট দেওয়া হলো:

এরকম অ্যানিমেশনকে বিভ্রান্তিমূলকভাবে সামাজিক মাধ্যমে প্রচার করলে এএফপি এর আগেও এরকম অসত্য দাবি খণ্ডন করেছে। দেখুন এখানেএখানে।