ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির ক্যামেরা হাতে এই ছবিটি এডিট করা

কপিরাইট এএফপি ২০১৭-২০২২। সর্বস্বত্ত্ব সংরক্ষিত।

ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি ক্যামেরার লেন্সের কাভার না সরিয়েই ছবি তোলার চেষ্টা করছেন এরকম একটি ছবি ফেসবুকে শেয়ার করা হচ্ছে। তবে ছবিটি মূলত এডিট করা। মূল ছবিতে মোদির হাতের ক্যামেরার লেন্সে কোন কাভার দেখতে পাওয়া যায় না।

গত ১৯ সেপ্টেম্বর ফেসবুকে এখানে ছবিটি শেয়ার করা হয়।

স্ক্রিনশটটি ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২২ তারিখে নেয়া

ছবিটিতে মোদিকে একটি ক্যামেরার ভিউফাইন্ডারে চোখ রেখে ছবি তুলতে দেখা যায়। তবে ক্যামেরাটির লেন্স একটি কাভার দিয়ে ঢাকা।

পোস্টটির বাংলা ক্যাপশনে লেখা রয়েছে, “পৃথিবীর অষ্টম আশ্চর্য নরেন্দ্র মোদি। আর কতো দেশের মানুষ কে হাসাবে উনি... ফটৌ তুলছে ক্যামেরা দিয়ে তার লেন্স কভার না খুলেই।”

একইরকম দাবি সহকারে ছবিটি ফেসবুকে এখানে এখানে শেয়ার করা হয়।

ছবিটি মূলত বিকৃত করে তৈরি করা হয়েছে।

কুনো ন্যাশনাল পার্ক ভ্রমণ

ছবিটি নিবিড়ভাবে দেখলে দেখা যায় মোদির হাতের ক্যামেরার উপরভাগে 'নাইকন' ব্র্যান্ডের নাম উল্টোভাবে লেখা। অন্যদিকে ক্যামেরার লেন্সের কাভারে 'ক্যানন' ব্র্যান্ডের লোগো।

নরেন্দ্র মোদির রাজনৈতিক দল ভারতীয় জনতা পার্টি'র (বিজেপি) গুজরাট শাখার টুইটার অ্যাকাউন্ট থেকে ছবিটির ফ্লিপ করা একটি সংস্করণ পোস্ট করা হয়।

টুইটটিতে বলা হয়, নয়াদিল্লী হতে ৩২০ কিলোমিটার (২০০ মাইল) দক্ষিণে কুনো ন্যাশনাল পার্কে নরেন্দ্র মোদির দর্শনের সময় ছবিটি তোলা হয়।

মূল ছবিটিতে মোদির হাতের ক্যামেরার লেন্সে কোন কাভার নেই। এই ছবিকেই ফ্লিপ করে তথা প্রতিবিম্ব সংস্করণ দিয়ে তা ফেসবুকে শেয়ার করা হয়।

নীচে বিভ্রান্তিকর ফেসবুক পোস্টের ছবি (বামে) ও বিজেপির গুজরাট শাখার পোস্ট করা ছবির (ডানে) একটি তুলনামূলক স্ক্রিনশট দেওয়া হলো:

আটটি নামিবিয়ান চিতা মুক্ত করতে কুনো ন্যাশনাল পার্কে মোদির গমন নিয়ে এএফপি'র প্রতিবেদন দেখুন এখানে

ইংরেজি সংবাদমাধ্যম ফার্স্ট পোস্টের এই প্রতিবেদনেও বিজেপি'র পোস্ট করা ছবিটিকে ক্রপ করে ব্যবহার করা হয়।

মোদির অফিসিয়াল ফেসবুকটুইটার অ্যাকাউন্ট থেকে ১৭ সেপ্টেম্বর কুনো ন্যাশনাল পার্কে তার গমনের আরো ছবি প্রকাশিত হয়।

এই ছবিগুলোতেও মোদিকে একই কাপড় পরনে ও ক্যামেরা হাতে দেখা যায়।