সংস্কৃত এই শ্লোক আবৃত্তির ভিডিওটি ২০০৯ সালের, ২০২২-এ রানী দ্বিতীয় এলিজাবেথের মৃত্যুর পরের নয়

কপিরাইট এএফপি ২০১৭-২০২২। সর্বস্বত্ত্ব সংরক্ষিত।

সামাজিক মাধ্যমে একটি ভিডিও শেয়ার করে দাবি করা হচ্ছে যে, ভিডিওটি ব্রিটেনের রানী দ্বিতীয় এলিজাবেথের মৃত্যুর পর ছাত্রদের কর্তৃক বেদ বাক্য আবৃত্তির। দাবিটি অসত্য; ভিডিওটি রানীর মৃত্যুর অনেক আগের এবং এতে ২০০৯ সালে লন্ডনের বাকিংহাম প্যালেসে ১৯ তম কমনওয়েলথ গেমসের জন্য রানীর ব্যাটন রিলে শুরুর সময় ছাত্রদের একটি দল কর্তৃক সংস্কৃত শ্লোক আবৃত্তির দৃশ্য দেখা যাচ্ছে।

দুই মিনিট দৈর্ঘ্যের ভিডিওটি গত ১২ সেপ্টেম্বর ফেসবুকে এ্রখানে শেয়ার করা হয়।

ভিডিওটিতে একদল ছাত্রকে গান গাইতে দেখা যায়। ভিডিওর ধারা বর্ণনায় বক্তাকে ছাত্রদের এই দলটি পশ্চিম লন্ডনের হ্যামারস্মিথের একটি স্কুলের বলে উল্লেখ করতে শোনা যায়।

বক্তা আরো বলেন, “এখানে বহু ভিন্ন ভিন্ন জাতিগোষ্ঠীর প্রতিনিধি রয়েছেন এবং তারা এখন শ্লোকা কবিতা ছত্র আবৃত্তি করবেন।”

শ্লোকা বা শ্লোক হলো ভারতের শাস্ত্রীয় ভাষা সংস্কৃতে ব্যবহৃত একটি কাব্যিক রূপ। স্বাভাবিক আকারে এটি ১৬ সিলেবলের চারটি পদ নিয়ে গঠিত।

পোস্টটির ক্যাপশনে লেখা রয়েছে, “আজ ব্রিটেনেও রাণী এলিজাবেথের অন্ত্যেষ্টি ক্রিয়ায় উচ্চারিত হলো অপৌরুষেয় বেদের পবিত্র বেদমন্ত্র ! পবিত্র বেদমন্ত্রধ্বনিতে উদ্ভাসিত হলো তথাকার আবহমণ্ডল ! এইভাবেই ধীরে ধীরে সমগ্র বিশ্বে ছড়িয়ে পড়ছে ভারতীয় চির শাশ্বত সনাতন বৈদিক সংস্কৃতি তথা ঋষিধারা!”

ব্রিটেনের ইতিহাসে সবচেয়ে দীর্ঘমেয়াদে সিংহাসনে অধিষ্ঠিত থাকা রানী দ্বিতীয় এলিজাবেথ গত ৮ সেপ্টেম্বর ৯৬ বছর বয়সে মৃত্যুবরণ করার পর ফেসবুকে ভিডিওটি ছড়ানো হয়।

একইরকম দাবিসহকারে ফেসবুকে এখানে এখানে ভিডিওটি শেয়ার করা হয়।

তবে দাবিটি অসত্য।

পুরনো ভিডিও

ভিডিওটিতে ওয়াইল্ড ফিল্মস ইন্ডিয়া.কমের জলছাপ রয়েছে, যা দিল্লি ভিত্তিক কন্টেন্ট ও প্রোডাকশন প্রতিষ্ঠান ওয়াইল্ডারনেস ফিল্মস ইন্ডিয়া এর ওয়েবসাইট।

ভিডিওটির ১১ সেকেন্ডে “দ্য সেন্ট জেমস স্কুল দল” লেখার পাশে “দিল্লি ২০১০” লেখা লোগো দেখা যায়।

গুগলে কীওয়ার্ড সার্চে দেখা যায়, ২০১৯ সালের ২২ মে তারিখে ওয়াইল্ডারনেস ফিল্মস ইন্ডিয়ার ইউটিউব চ্যানেল থেকে এই ভিডিওটি প্রকাশিত হয়।

ভিডিওটির শিরোনামে লেখা রয়েছে, “বাকিংহাম প্যালেসে সেন্ট জেমস স্কুলের ছাত্রদের শ্লোকা আবৃত্তি।”

বর্ণনায় লেখা রয়েছে, “২০১০ সালের কমনওয়েলথ গেমসের কুইন ব্যাটনের সময় বাকিংহাম প্যালেসে সেন্ট জেমস স্কুলের দল আধ্যাত্নিক কবিতা আবৃত্তি করেন।”

নীচে বিভ্রান্তিকর ফেসবুক পোস্টের ভিডিও (বামে) ও ওয়াইল্ডারনেস ফিল্মস ইন্ডিয়ায় প্রকাশিত ভিডিওর (ডানে) একটি তুলনামূলক স্ক্রিনশট দেখানো হলো:

রিলে উদ্বোধন ইভেন্ট

২০১০ সালের কমনওয়েলথ গেমসের কুইন ব্যাটন বলতে ২০১০ সালে ভারতের রাজধানী দিল্লিতে অনুষ্ঠিত ১৯ তম কমনওয়েলথ গেমসের কুইন ব্যাটন রিলে বোঝানো হয়।

এই রিলেতে রানীর বার্তা সম্বলিত ব্যাটন বাকিংহাম প্যালেস থেকে শুরু করে কমনওয়েলথের বিভিন্ন দেশ ঘুরে আয়োজক দেশে গিয়ে পৌঁছায়।

২০১০ সালের গেমসের রিলে ২০০৯ সালের ২৯ অক্টোবর বাকিংহাম প্যালেস থেকে যাত্রা শুরু করে।

ভিন্ন কোন থেকে ধারণ করা একই অনুষ্ঠানের অন্য ভিডিও আয়োজকদের ফেসবুক পেজ থেকে ২০০৯ সালের ২৫ নভেম্বর এবং এবিসি নিউজ অস্ট্রেলিয়া'র ইউটিউব চ্যানেল হতে ২০০৯ সালের ৩০ অক্টোবর প্রকাশিত হয়।

নীচে বিভ্রান্তিকর ফেসবুক পোস্টের ভিডিও (বামে) ও গেমসের আয়োজকদের পোস্ট করা ভিডিওর (ডানে) একটি তুলনামূলক স্ক্রিনশট দেখানো হলো:

রানী এলিজাবেথের মৃত্যুর পর অনলাইনে ছড়ানো আরো অসত্য দাবিসম্বলিত পোস্টের ফ্যাক্টচেক করেছে এএফপি। দেখুন এখানে, এখানে এখানে