ছবিগুলো রাশিয়া-ক্রাইমিয়ার মধ্যকার একটি সেতুর, বাংলাদেশের কালনা সেতুর নয়

কপিরাইট এএফপি ২০১৭-২০২২। সর্বস্বত্ত্ব সংরক্ষিত।

ফেসুবকে দুটি ছবি শেয়ার করে দাবি করা হচ্ছে এগুলো বাংলাদেশের দক্ষিণাঞ্চলে নির্মিতব্য একটি সেতুর ছবি। যদিও জুলাই মাসের মাঝামাঝিতে স্থানীয় সংবাদমাধ্যমে সেতুটির কাজ সমাপ্তির দিকে বলে খবর প্রকাশিত হয় তবে এই দুটি ছবি অসত্য দাবি সহকারে শেয়ার করা হয়েছে। ছবি দুটি মূলত রাশিয়া ও অধিকৃত কৃষ্ণ সাগরীয় দ্বীপ ক্রাইমিয়ার মধ্যে সংযোগ সাধনকারী একটি সেতুর। 

গত ২ জুলাই ফেসবুকে এখানে ছবি দুটি শেয়ার করা হয় যেগুলো মূলত একটি অপরটির প্রতিবিম্ব স্বরূপ। ছবিগুলোতে বাংলাদেশের পতাকাও দেখতে পাওয়া যায়। 

পোস্টটির বাংলা ক্যাপশনে লেখা রয়েছে, “কালনা সেতু উদ্বোধনের অপেক্ষায়। মধুমতি নদীর উপর ৬ লেনের কালনা সেতু চালু হতে যাচ্ছে খুব শিগগিরই। নির্মাণকাজ শেষ হয়েছে ৯০ ভাগের বেশি।”

“সেতুটি চালু হলে ঢাকা থেকে খুলনার দূরত্ব কমবে ১২১ কিলোমিটার (৭৫ মাইল)। আর ২শ কিলোমিটার (১২৪ মাইল) কমবে ঢাকা-কলকাতার দূরত্ব।”

বাংলাদেশি সংবাদমাধ্যম ঢাকা ট্রিবিউনের প্রতিবেদন অনুযায়ী, বাংলাদেশের দক্ষিণ-পশ্চিমের জেলা নড়াইল ও গোপালগঞ্জকে সংযুক্তকারী কালনা সেতুর নির্মাণ কাজ একেবারে শেষ ধাপে রয়েছে। 

প্রতিবেদনটির ভাষ্য অনুযায়ী, আগামী সেপ্টেম্বরে সেতুটি উদ্বোধন হলে রাজধানী ঢাকার সাথে সড়ক যোগাযোগর আরো কম সময় লাগবে।

গত জুনে রাজধানী ঢাকার পাশে বাংলাদেশের অর্থনৈতিক উন্নয়নে গুরুত্বপূর্ণ পদ্মা সেতুর উদ্বোধনের পর এই সেতুটি উদ্বোধন হতে যাচ্ছে।  

ছবিগুলো ফেসবুকে এখানে এখানে একই রকম দাবি সহকারে শেয়ার করা হয়।

তবে এই দুটি মূলত ক্রাইমিয়ায় অবস্থিত একটি সেতুর ছবি। 

ক্রাইমিয়া সেতু

গুগল রিভার্স ইমেজ সার্চে দেখা যায় যে মূল ছবিটি ২০১৮ সালের ১৪ মে ক্রাইমিয়াতে রাশিয়ার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় কর্তৃক একটি টুইটার পোস্টে প্রকাশিত হয়। 

টুইটটিতে লেখা রয়েছে, “১৯ কিলোমিটার দীর্ঘ রাশিয়া ও ইউরোপের দীর্ঘতম ক্রাইমিয়া সেতু ১৬ মে গাড়ি চলাচলের জন্য উন্মুক্ত হবে।”

মূল ছবিটিতে বাংলাদেশের পতাকা দৃশ্যমান নয়। 

২০১৮ সালের ১৫ মে রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন ক্রাইমিয়ার উদ্দেশ্যে একটি ট্রাক চালিয়ে ক্রাইমিয়া সেতুর উদ্বোধন করেন। 

২২৮ বিলিয়ন রাশিয়ান রুবলে (৩.৭ বিলিয়ন মার্কিন ডলার) নির্মিত ক্রাইমিয়া সেতু রাশিয়ার ক্রাসনোডার অঞ্চলের সাথে ক্রাইমিয়ার কের্চ শহরকে সংযুক্ত করেছে। 

নীচে বিভ্রান্তিকর ফেসবুক পোস্টের ছবি (বামে) ও রাশিয়ার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় কর্তৃক টুইটারে পোস্ট করা ছবিটির (ডানে) একটি তুলনামূলক স্ক্রিনশট দেওয়া হলো: 

একই ছবি ২০১৮ সালৈর ১৫ মে ক্রাইমিয়া সেতুর উদ্বোধন নিয়ে করা যুক্তরাজ্য ভিত্তিক ট্যাবলয়েড ডেইলি মেইলের অনলাইন সংস্করণের একটি প্রতিবেদনেও প্রকাশিত হয়।