এটি ২০২১ সালে পাকিস্তানে এক ধর্মীয় নেতার স্মরণে অনুষ্ঠিত শোকসভার ভিডিও

কপিরাইট এএফপি ২০১৭-২০২২। সর্বস্বত্ত্ব সংরক্ষিত।

ফেসবুকে একটি ভিডিও ক্লিপ শেয়ার করে দাবি করা হচ্ছে নবী মুহাম্মদকে নিয়ে ভারতের ক্ষমতাসীন দলের সাবেক মুখপাত্রের বিতর্কিত মন্তব্যের প্রতিবাদে কয়েকটি মুসলিম দেশের মানুষের বিক্ষোভের দৃশ্য এটি। দাবিটি অসত্য; এটি মূলত ২০২১ সালের জানুয়ারি মাসে পাকিস্তানে এক মুসলিম ধর্মীয় নেতার স্মরণে অনুষ্ঠিত শোকসভার দৃশ্য।

৩০ সেকেন্ড দৈর্ঘ্যের ক্লিপটি গত ৭ জুন ফেসবুকে এখানে পোস্ট করা হয় যা ২৯ হাজারের বেশি দেখা হয়েছে।

পোস্টটির ক্যাপশনে লেখা রয়েছে, “আজ সৌদি আরব, ইরান, কাতার, কুয়েত, লিবিয়া, ওমান, বাহরাইন, আফগানিস্তান, সবাই মিলে হুজুর মুহাম্মাদুর রাসূলুল্লাহর নামে অবমাননা করার প্রতিবাদে বিশ্ব সরব।”

একই ক্যাপশনে ইংরেজিতে লেখা রয়েছে: “#Stopinsulting_ProphetMuhammad #IndiaAgainstHate #gulfcountries #qatar #ShameOnBJP #Owaisi #prophet #NupurSharma #Nupur_Sharma #Modi।”

Screenshot of the misleading post, taken on June 30, 2022 ( Mohammad MAZED)

সম্প্রতি ভারতের ক্ষমতাসীন দল বিজেপির সদ্য সাবেক মুখপাত্র নুপুর শর্মা কর্তৃক একটি টেলিভিশন আলোচনায় নবী মুহাম্মদ এর সাথে তার সর্বশেষ স্ত্রীকে নিয়ে একটি মন্তব্যের জের ধরে বিশ্বব্যাপী মুসলমানরা বিক্ষোভ প্রদর্শন করার প্রেক্ষিতে পোস্টটি অনলাইনে ছড়ায়।

মন্তব্যটির পর বিজেপি নুপুর শর্মাকে তার দায়িত্ব থেকে অব্যাহতি প্রদান করে।

একই ভিডিও ক্লিপ ফেসবুকে এখানে এখানে একই রকম দাবি সহকারে শেয়ার করা হয়। 

তবে দাবিটি অসত্য।

রিভার্স ইমেজ সার্চে দেখা যায় একই ভিডিও ২০২১ সালের ৪ জানুয়ারি ইউটিউবে পোস্ট করা হয়। 

ভিডিওটির বর্ণনায় লেখা রয়েছে, “আল্লামা খাদিম হোসাইন রিজভীর চেহলাম, ২০২১।”

পাকিস্তানের ডানপন্থী দল তেহরিক ই লাব্বাইক পাকিস্তান (টিএলপি) এর নেতা খাদিম হোসাইন রিজভী ২০২০ সালের ১৯ নভেম্বর মৃত্যুবরণ করেন। 

রাজনৈতিক জীবনে রিজভী ইসলামপন্থী ধর্মীয় রাজনীতিতে বেশ শক্ত অবস্থানে ছিলেন এবং মুহুর্তের নোটিশে তিনি হাজারো ব্লাসফেমি বিরোধী গ্রুপকে জড়ো করতে পারতেন। 

অন্যদিকে মুসলমানদের মধ্যে কেউ মারা গেলে চল্লিশ দিনের দিন তার স্মরণে সভা অনুষ্ঠিত হওয়াকে চেহলাম বলা হয়। টিএলপি'র বিবৃতি অনুযায়ী, ২০২১ সালের ৩ জানুয়ারী পাকিস্তানের লাহোরে রিজভীর চেহলাম অনুষ্ঠিত হয়।

তার স্মরণে এই শোকসভা নিয়ে পাকিস্তানের স্থানীয় সংবাদমাধ্যমেও এখানে এখানে প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়।

নীচে বিভ্রান্তিকর ফেসবুক পোস্টের ভিডিও (বামে) ও ইউটিউবে পোস্ট করা ভিডিওর (ডানে) মধ্যে একটি তুলনামূলক স্ক্রিনশট দেখানো হলো:

(Uzair RIZVI)

শোকসভাকে ঘিরে টিএলপি'র দেয়া পরিকল্পনা অনুযায়ী মুলতান রোডে এই সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। 

ওই এলাকার স্যাটেলাইট দৃশ্যে এলিভেটেড ট্রেনের রাস্তা দেখা যায় যা বিভ্রান্তিকর ফেসবুক পোস্টের ভিডিওতেও দৃশ্যমান। 

Satellite image screenshot of Multan Road taken from Google Maps

গুগল ম্যাপসে মুলতান রোডের অন্যান্য ছবি ভিডিওতেও এলিভেটেড রেললাইন দেখা যায়।