Kashmiri college students gather for classes on the first day of the session at Women's College in Srinagar on March 5, 2014. Schools and colleges in the Kashmir valley re-opened March 5 following a nearly three-month long winter break. ( AFP / TAUSEEF MUSTAFA) ( AFP / TAUSEEF MUSTAFA)

পাকিস্তানের পক্ষে স্লোগান দেওয়ায় ভারতে ডিগ্রি বাতিলের খবরটি ভুয়া

কপিরাইট এএফপি ২০১৭-২০২২। সর্বস্বত্ত্ব সংরক্ষিত।

সামাজিক মাধ্যম ফেসবুকে একটি ছবি শেয়ার করে দাবি করা হচ্ছে যে, এটি পাকিস্তানের পক্ষে স্লোগান দেওয়ার জন্য ডিগ্রি বাতিল করা ভারতের শ্রীনগরের একটি কলেজের ১০০ ছাত্রীর ছবি। দাবিটি অসত্য; স্থানীয় স্বাস্থ্য ও চিকিৎসা শিক্ষা বিভাগের একজন মুখপাত্র জানান এই দাবিটি সম্পূর্ণ ভুয়া। মূলত ছবিটি ২০১৭ সালের এবং এতে উত্তর প্রদেশের একটি কলেজে ছাত্রীদের প্রাত:সমাবেশের ছবি। 

গত ৩০ অক্টোবর ফেসবুকে এখানে ছবিটি শেয়ার করা হয়। 

( Mohammad MAZED)

পোস্টটির ক্যাপশনে লেখা রয়েছে, "শ্রীনগর কাশ্মীর মেডিক্যাল কলেজের 100জন বেহেশতের হুর পাকিস্তান জিন্দাবাদ স্লোগান তুলেছিল... তাদের ডিগ্রী বাতিল হল।"

শ্রীনগর ভারতের জম্মু ও কাশ্মীরের রাজধানী এবং সবচেয়ে বড় শহর। 

গত অক্টোবরে টি টুয়েন্টি বিশ্বকাপের ভারত ও পাকিস্তানের মধ্যকার ক্রিকেট ম্যাচে পাকিস্তানের জয়ের পর কিছু ভারতীয় পাকিস্তানের হয়ে উদযাপন করার প্রেক্ষিতে ছবিটি অনলাইনে ছড়ায়। 

হিমালয়ের পার্শ্ববর্তী মুসলমান অধ্যুষিত কাশ্মীরে ভারত বিরোধী মনোভাব খুব প্রবল এবং ভারত-পাকিস্তান দুটি দেশই এই অঞ্চলের মালিকানা দাবি করে। ২০১৯ সালের আগস্টে ভারত সরকার সংবিধানের ৩৭০ ধারা বাতিলের মাধ্যমে প্রদেশটিতে স্বায়ত্তশাসন প্রত্যাহার করে নেয়। 

ছবিটি একইরকম দাবি সহকারে ফেসবুকে এখানেএখানে শেয়ার করা হয়। 

তবে দাবিটি অসত্য। 

বোরকা পরা নারীদের ছবি

গুগল রিভার্স ইমেজ সার্চে দেখা যায় এই ছবিটি ২০১৭ সালের ১৩ নভেম্বর ভারতীয় সংবাদমাধ্যম দ্য মর্নিং ক্রনিকলস এর একটি প্রতিবেদনে প্রকাশিত হয়। 

প্রতিবেদনটির শিরোনাম ছিল: "পরিবর্তনের ছোঁয়া: শিক্ষিত হচ্ছে মুসলিম মেয়েরা, লক্ষ্য উঁচুতে।"  

ছবির ক্যাপশনে লেখা রয়েছে: "প্রাত:সমাবেশেে আজমগড় জেলার দাউদপুর গ্রামে ফাতিমা গার্লস ইন্টার কলেজের ছাত্রীরা। ছবি: আইএএনএস।"

ফাতেমা গার্লস ইন্টার কলেজ ভারতের উত্তর প্রদেশের আজমগড়ে অবস্থিত। 

নীচে বিভ্রান্তিকর ফেসবুক পোস্টের ছবি (বামে) ও ২০১৭ সালের প্রতিবেদনে প্রকাশিত ছবির (ডানে) একটি তুলনামূলক স্ক্রিনশট দেওয়া হলো:

২০১৭ সালের ১৩ নভেম্বর ফাতেমা গার্লস ইন্টার কলেজের ফেসবুক পোস্ট থেকে সংবাদ প্রতিবেদনের ছবিটি শেয়ার করা হয় যার ক্যাপশন ছিল, "কলেজে প্রাত:সমাবেশ।" 

এ ব্যাপারে কলেজের সেক্রেটারী আসিফ দাউদি এএফপিকে বলেন, "এই ছবিটি দুই তিন বছর আগে আমাদের কলেজের প্রাত:সমাবেশের ছবি।"

ভুয়া খবর 

কাশ্মীর পুলিশের আইজিপি বিজয় কুমার জানান যে, শ্রীনগর সরকারী মেডিকেল কলেজের ছাত্রীদের ডিগ্রি বাতিলের খবরটি "সম্পূর্ণ ভুয়া"। 

তিনি বলেন, "মেডিকেলের ছাত্রীদের ডিগ্রি বাতিলের মতো কোন সিদ্ধান্ত সরকার নেয়নি।"

জম্মু ও কাশ্মীর সরকারের অতিরিক্ত মুখ্য সচিব বিবেক ভারদোয়াজও খবরটিকে ভুয়া বলে অভিহিত করেন।  

তিনি এএফপি'কে বলেন, "পড়ালেখা শেষ হওয়ার পর ডিগ্রি প্রদান করা হয়। যেখানে এখনো ডিগ্রি দেয়াই হয়নি তা কিভাবে বাতিল করা হয়?"

২০২১ সালে শ্রীনগরে মেডিকেল ছাত্রদের ডিগ্রি বাতিলের কোন খবর এএফপি খুঁজে পায়নি।