ছবিটি ২০১৯ সালে ভারতের কর্নাটকে মোদি সমর্থকদের এক সমাবেশের

কপিরাইট এএফপি ২০১৭-২০২২। সর্বস্বত্ত্ব সংরক্ষিত।

অক্টোবরের মাঝামাঝি বাংলাদেশের কয়েকটি জায়গায় সংখ্যালঘু হিন্দু সম্প্রদায়ের বাড়িঘর ও মন্দিরে হামলার ঘটনার পর ফেসবুকে একটি ছবি ছড়িয়ে। বিশাল জনসমাবেশের ছবিটি পোস্ট করে দাবি করা হচ্ছে এটি বাংলাদেশে হামলার ঘটনায় সীমান্তবর্তী ভারতের আসাম রাজ্যে হিন্দুদের প্রতিবাদের ছবি।

গত ২৩ অক্টোবর ফেসবুকে ছবিটি এখানে পোস্ট করা হয়।

বাংলায় ক্যাপশনে লেখা হয়েছে: "আসাম বাংলাদেশ সীমান্তে তীব্র উত্তেজনা! বাংলাদেশে চলমান হিন্দু গণত্যার প্রচেষ্টার জেরে সমগ্র বারাক থেকে শুরু করে গৌহাটি অবদি আসামের সর্বস্তরের হিন্দুরা জেগে ওঠেছে! ! ভারত-বাংলাদেশ সীমান্ত ও সীমান্তবর্তী মুসলিম বহুল এলাকাগুলোতে রেড এলার্ট!"

আসাম বাংলাদেশের সীমান্তবর্তী ভারতের উত্তরপূর্বাঞ্চলীয় একটি রাজ্য।

চলতি অক্টোবর মাসের মাঝামাঝি সময় বাংলাদেশের কিছু অঞ্চলে হিন্দু সংখ্যালঘুদের ওপর হামলার ঘটনার পর ছবিটি বিভিন্ন ফেসবুক পোস্টে ছড়াচ্ছে।

একই রকম দাবি সহকারে ছবিটি এখানেএখানে পোস্ট করা হয়েছে।

কিন্তু দাবিটি ভুল।

কীওয়ার্ড এবং রিভার্স ইমেজ সার্চ করে ছবিটি ২০১৯ সালের ১৪ এপ্রিল এই টুইটে পাওয়া গেছে।

তখন ক্যাপশন দেয়া হয়েছিল: "ম্যাঙ্গালুরুতে অসাধারণ গণজমায়েত। মোদিজির এই বিশাল সমাবেশে ৬ লাখের বেশি লোক অংশ নিয়েছেন। কর্নাটকের উপকূলাঞ্চলের সব বিজেপি প্রার্থীর বিপুল বিজয় নিশ্চিত। #ModiInMangaluru"

ভাইরাল হওয়া ছবির দৃশ্যের সাথে ২০১৯ সালের ১৩ এপ্রিল SahilOnline TV কর্তৃক ম্যাঙ্গালুরুর এক সমাবেশের এই লাইভ সম্প্রচারিত দৃশ্যের মিল রয়েছে।

SahilOnline TV এর ইউটিউব চ্যানেলে ভিডিওর ক্যাপশন দেয়া হয়েছে: "ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি কর্নাটকের ম্যাঙ্গালুরুতে গণসমাবেশে বক্তব্য দিচ্ছেন"।

টাইমস অব ইন্ডিয়ার এই রিপোর্টে জানানো হয়েছে, ম্যাঙ্গালুরুতে মোদির সমাবেশের ভ্যানু ছিল 'নেহরু ময়দান' নামে স্থানীয় একটি খেলার মাঠ।

গুগল স্ট্রিট ভিউতে নেহরু ময়দানের দৃশ্যবালীর সাথে বিভ্রান্তিকর ফেসবুক পোস্টে ছড়ানো ছবিটির দৃশ্যবালীর মিল পাওয়া গেছে। এতে নিশ্চিত হওয়া যায় যে, ছবিটি আসামে নয়, বরং ম্যাঙ্গালুরুতে দুই বছর আগে তোলা।