( AFP / MUNIR UZ ZAMAN)

মেট্রো রেলের যন্ত্রাংশ চুরির অভিযোগে ভারতীয় নাগরিক গ্রেফতার হওয়ার বিভ্রান্তিকর খবর ফেসবুকে

কপিরাইট এএফপি ২০১৭-২০২২। সর্বস্বত্ত্ব সংরক্ষিত।

বেশ কিছু ফেসবুক পোস্ট হাজারো বার শেয়ার হয়েছে যেগুলোতে দাবি করা হচ্ছে বাংলাদেশের রাজধানী ঢাকায় নির্মাণাধীন মেট্রো রেল প্রকল্পের যন্ত্রাংশ চুরি করার অপরাধে ১১ জন ভারতীয় নাগরিককে গ্রেফতার করা হয়েছে। খবরটি বিভ্রান্তিকর। গ্রেফতার অভিযান পরিচালনাকারী বাংলাদেশের নিরাপত্তা বাহিনী র্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটেলিয়ন জানিয়েছে, গ্রেফতারকৃতরা সবাই বাংলাদেশি নাগরিক।

দাবিটি গত ১৫ সেপ্টেম্বর ২০২১ তারিখে এখানে পোস্ট করা হয়। এই পোস্টটি ৫ হাজারের বেশিবার শেয়ার হয়েছে।

( Qadaruddin SHISHIR)

পোস্টটিতে বলা হয়েছে: ''মেট্রোরেলের যন্ত্রাংশ চুরি। র্যাবের হাতে ১১ জন ভারতীয় নাগরিক আটক!''

এই চুরির ঘটনায় ডেইলি স্টার পত্রিকায় গত ১৩ সেপ্টেম্বর খবর প্রকাশিত হয় এখানে

তাতে বলা হয়, ''মেট্রো রেল প্রকল্পের যন্ত্রাংশ চুরির অভিযোগে একটি সংঘবদ্ধ চোর চক্রের ১১ সদস্যকে ঢাকার মিরপুর এলাকা থেকে গ্রেফতার করা হয়েছে।''

কিন্তু এই গ্রেফতারকৃতদের জাতীয়তা কী তা প্রতিবেদনে ছিলো না।

বাংলাদেশের রাজধানী ঢাকায় প্রথম মেট্রো রেল সেবার পরীক্ষামূলক যাত্রা করা হয় গত ২৯ আগস্ট।

আগস্ট মাসেই দেশটির সড়ক যোগাযোগ মন্ত্রী জানান, ২০২২ সালের শেষের দিকে প্রকল্পটি বাণিজ্যিকভাবে কার্যক্রম শুরু করার কথা রয়েছে। এ বিষয়ে ঢাকা ট্রিবিউন পত্রিকার প্রতিবেদন দেখুন এখানে

ভারতীয় নাগরিক গ্রেফতারের খবরটি ফেসবুকে এখানে, এখানে এবং এখানেও পোস্ট করা হয়েছে।

কিন্তু খবরটি বিভ্রান্তিকর।

র্যাবের মুখপাত্র সাজেদুল ইসলাম এএফপি'কে বলেন যাদেরকে এ ঘটনায় গ্রেফতার করা হয়েছে তারা সবাই বাংলাদেশের নাগরিক।

তিনি বলেন, ''যদি কেউ দাবি করে থাকে যে তারা ভারতীয় নাগরিক তাহলে সেটা ভুয়া খবর। আমরা তাদেরকে ঢাকা থেকে গ্রেফতার করেছি এবং তারা সবাই বাংলাদেশি।''

বাংলাদেশের অন্যান্যসংবাদমাধ্যমেও এএফপি এমন কোনো প্রতিবেদন পায়নি যেখানে গ্রেফতারকৃতদের ভারতীয় নাগরিক বলে জানানো হয়েছে।