আফগানিস্তানে তালেবানের নিয়ন্ত্রণ প্রতিষ্ঠার কয়েক মাস আগে থেকেই এই ভিডিওটি অনলাইনে রয়েছে

কপিরাইট এএফপি ২০১৭-২০২২। সর্বস্বত্ত্ব সংরক্ষিত।

সামাজিক মাধ্যম ফেসবুকে কয়েক ব্যক্তির নাচের একটি ভিডিও পোস্ট করে দাবি করা হচ্ছে যে, এটি আফগানিস্তানের রাজধানী কাবুল অধিকারের পর তালেবান সদস্যদের নাচের ভিডিও। দাবিটি অসত্য; পাকিস্তানের একটি বিয়ের অনুষ্ঠানের দৃশ্য বলে ভিডিওটি গত মার্চ মাস থেকে অনলাইনে ছিল।

গত ১৭ আগস্টের একটি ফেসবুক পোস্টে ভিডিওটির ক্যাপশনে লেখা হয়েছে, ''কাবুল দখলের পর আফগান জনগণ যখন জীবন বাঁচানোর জন্য দিগবিদিক পালাচ্ছে তখন তালেবান জঙ্গিদের উন্মুক্ত ডিজে ড্যান্স।''

বিভ্রান্তিকর ফেসবুক পোস্টের স্ক্রিনশটটি ১৯ আগস্ট ২০২১ তারিখে নেয়া

ভিডিওটিতে কয়েক ব্যক্তিকে আগ্নেয়াস্ত্র হাতে নাচতে দেখা যায়।

নেদারল্যান্ড, নাইজেরিয়া, ফিলিপাইন যুক্তরাষ্ট্রসহ বিশ্বের অন্যান্য স্থানে সামাজিক মাধ্যমে ভিডিওটি ছড়িয়েছে।

কিছু পোস্টে দেখা গেছে ভিডিওর নৃত্যের সাথে র্যাপ সঙ্গীত শিল্পী ড্রেইক এর 'ইন মাই ফিলিংস' গান বাজছে। কেনিয়াতে ফেসবুকে ছড়ানো এমন একটি ভিডিও সাড়ে তিন মিলিয়নের বেশি ভিউ হয়েছে।

কিন্তু ভিডিওটির সাথে তালেবানের কাবুল অধিকারের ঘটনাকে জুড়ে দিয়ে যে খবর ছড়ানো হচ্ছে তা অসত্য।

কী-ফ্রেম সার্চে দেখা যায়, গত ১৫ আগস্ট তালেবানদের হাতে আফগানিস্তানের রাজধানী কাবুল অধিকার হওয়ার কয়েক মাস আগে থেকে ভিডিওটি অনলাইনে ছিল।

এএফপি দেখতে পায় ভিডিওটি ২০২১ সালের ২৫ মার্চ ইউটিউবে আপলোড করা হয়। সেই ভিডিওর বর্ণনায় লেখা আছে, ''#ডিজেবান্নু #ড্যান্স #ফানি #মিউজিক #কালচার #পাকিস্তান।''

বান্নু হলো পাকিস্তানের খাইবার পাখতুনখোয়া প্রদেশের একটি জেলার নাম।

নীচে বিভ্রান্তিকর ফেসবুক পোস্টের ভিডিও (বামে) ও মার্চ মাসের ইউটিউব ভিডিওর (ডানে) একটি তুলনামূলক স্ক্রিনশট দেওয়া হলো:

বিভ্রান্তিকর ফেসবুক পোস্ট (বামে) এবং মার্চ মাসে ইউটিউবে প্রকাশিত ভিডিওটির তূলনামূলক স্ক্রিনশট

একটি বিয়ের অনুষ্ঠানের ভিডিও হিসেবে ক্লিপটি গত মার্চ এপ্রিল মাসে অনলাইনে বিভিন্ন মাধ্যমে ছড়ায়। দেখুন এখানে এখানে

এ সংক্রান্ত এএফপি'র ইংরেজি ভাষার ফ্যাক্ট চেকটি পড়ুন এখানে

আফগানিস্তান