২০২১ সালের ১০ আগস্ট প্যারিসের উত্তরে লা বুর্জেই বিমানবন্দরে নেমে ভক্তদের প্রতি হাস্যজ্জোল আর্জেন্টাইন ফুটবল তারকা মেসি। (AFP / SAMEER AL-DOUMY) ( AFP / Sameer Al-DOUMY)

বার্সেলোনা ছাড়ার খবরের সাথে মেসি ভক্তের পুরনো ভিডিও জুড়ে দিয়ে ফেসবুকে বিভ্রান্তি

কপিরাইট এএফপি ২০১৭-২০২২। সর্বস্বত্ত্ব সংরক্ষিত।

লিওনেল মেসির বার্সেলোনায় প্রায় ২১ বছরের ক্যারিয়ারের সমাপ্তি টানার ঘোষণার খবরের সাথে ফেসবুকে একটি ভিডিও ছড়িয়েছে যেখানে দাবি করা হচ্ছে যে, খবরটি শুনে এক মেসি ভক্ত ন্যু ক্যাম্পের বাইরে কান্নায় ভেঙ্গে পড়ছেন। তবে ফেসবুক পোস্টগুলো বিভ্রান্তিকর; ভিডিওটি মূলত ২০২০ সালের আগস্টের যখন মেসি বার্সেলোনা ছাড়তে চেয়েছিলেন কিন্তু শেষ পর্যন্ত সেই মৌসুম তিনি কাতালান ক্লাবটিতেই কাটান।

গত ৬ আগস্ট ফেসবুকে এখানে পোস্ট করা এই ভিডিওটির ক্যাপশনে লেখা ছিল, ''রাতে মেসির বিদায়ের ঘোষণার পর হার্ট অ্যাটাক করে মারা গেছেন একজন মেসি ফ্যান, র্সোস- স্পানিশ বার্তা। বার বার বলি শক্ত হন মেসি ত আর সব সময় থাকবে না, মেসির বিদায়ের ঘোষণার পর বার্সা ক্লাবের পাশে সাপোর্টারদের আনাগোনা দেখা দিচ্ছে।''

( Qadaruddin SHISHIR)

ভিডিওতে দেখা যায়, মেসির বার্সেলোনার জার্সি হাতে নিয়ে এক সমর্থক হাঁটু গেড়ে কান্নায় মাটিতে ভেঙ্গে পড়েন। 

একই ভিডিও ফেসবুকে এখানেএখানে অনুরূপ ক্যাপশন সহকারে পোস্ট করা হয়েছে। 

বাংলা ছাড়াও ইংরেজি, ফ্রেঞ্চ, রোমানিয়ান, স্প্যানিশ ও থাই ভাষায়ও ভিডিওটি ছড়িয়েছে।

ফুটবল ইতিহাসের অন্যতম সেরা হিসেবে বিবেচিত এই আর্জেন্টাইন তারকা গত ৮ আগস্ট কান্নাভেজা এক সংবাদ সম্মেলনে বার্সেলোনায় ২১ বছরের বর্ণিল ক্যারিয়ারের সমাপ্তি টানার ঘোষণা দেন। পরবর্তীতে ফরাসী ফুটবল ক্লাব প্যারিস সেন্ট জার্মেইন দুই বছরের চুক্তিতে মেসিকে কেনার ঘোষণা দেয়।  

মেসির আচমকা এই ঘোষণা আসার পর হতাশ সমর্থকদের এই তারকাকে উদ্দেশ্য করে সামাজিক মাধ্যমে আবেগী ও স্তুতিমূলক পোস্ট করতে দেখা যায়। এর মধ্যে এই ভিডিও ক্লিপটিও বিভ্রান্তিকরভাবে ছড়ায়।

সার্চ ইঞ্জিন ইয়ানডেক্সে রিভার্স ইমেচ সার্চে দেখা যায়, এই ভিডিও থেকে নেওয়া স্থির চিত্র ২০২০ সালের ২৮ আগস্ট তু্র্কি সংবাদমাধ্যম হাবেরফুলের (Haberfull) একটি প্রতিবেদনে প্রকাশ হয়। প্রতিবেদনটি শিরোনাম ছিল: ''ক্লাব ছাড়ার কথা শুনে লিওনেল মেসির জন্য এক বার্সেলোনা সমর্থকের কান্না, মেসিকে নিয়ে বার্সেলোনায় সংকট কাটছেই না।''

নীচে বিভ্রান্তিকর ফেসবুক পোস্টের ভিডিও (বামে) ও হাবেরফুলের প্রতিবেদনের (ডানে) তুলনামূলক স্ক্রিনশট দেওয়া হলো:

বিভ্রান্তিকর পোস্ট এবং হাবেরফুল এর প্রতিবেদনে প্রকাশিত ছবির তুলনামূলক চিত্র ( AFP)

 

গুগল কীওয়ার্ড সার্চে বিভিন্ন ক্রীড়া সংবাদমাধ্যমের টুইটার পোস্টেও একই ভিডিও পাওয়া যায়। ২০২০ সালের ২৭ আগস্ট গোল ইটালিয়ার টুইটারে ভিডিওটি পোস্ট করা হয়। টুইটের ক্যাপশন ছিল, ''ন্যু ক্যাম্পের বাইরে কান্না, সমর্থকদের কাছে মেসির মূল্য এমনই।''

২০২০ সালের ২০ আগস্ট খবর প্রকাশিত হয় যে, বার্সেলোনা কর্তৃপক্ষের সাথে মেসি ক্লাব ছাড়ার ইচ্ছার কথা জানিয়ে যোগাযোগ করেছেন। কিন্তু পরবর্তীতে তিনি সিদ্ধান্ত পাল্টান এবং ঘোষণা দেন, সে মৌসুম তিনি বার্সেলোনাতেই খেলবেন। 

তবে বিভ্রান্তিকর ফেসবুক পোস্টগুলোতে হার্ট অ্যাটাক করে এক মেসি ভক্তের মৃত্যুর কথা উল্লেখ করা হলেও এএফপি এরকম কোন খবর খুুঁজে পায়নি।